শিরোনাম

ট্রেনে ঢিল, জানালায় নেট লাগাবে রেলওয়ে

         

ফাইল ছবি

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলন্ত ট্রেনে ১১০ বার পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এতে ট্রেনের গ্লাস ভেঙেছে ১০৩টি, আহত হয়েছেন ২৯ জন। তাই ট্রেনের জানালায় নেট লাগানোর কথা ভাবছে রেল মন্ত্রণালয়।

রোববার রেল ভবনে এসব কথা জানান রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

৩ সেপ্টেম্বর কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী আন্তনগর কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে দুষ্কৃতকারীদের পাথর নিক্ষেপের ফলে আহত হন সহকারী চালক কাওছার আহম্মদ। কাচের টুকরা গিয়ে আঘাত করে তার চোখে।

১ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে সিলেটগামী আন্তনগর উপবন এক্সপ্রেস নামের ট্রেনে পাথর ছুড়ে মারার ঘটনা ঘটেছে। এতে নরসিংদীর দুজনসহ ট্রেনটির অন্তত চারজন যাত্রী আহত হয়েছে। রাত পৌনে ১০টার দিকে গাজীপুরের টঙ্গী রেলস্টেশনে পৌঁছার আগমুহূর্তে এ ঘটনা ঘটে।

নরসিংদীর আহত দুজন হলেন সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের টাওয়াদী এলাকার দেলোয়ার মিয়ার ছেলে কবির মিয়া (৩৮) ও করিমপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের হাসান আলীর ছেলে শুক্কুর আলী (৩২)। এ ঘটনায় আহত অন্য দুজনের পরিচয় জানা না গেলেও তাঁদের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় বলে যাত্রীদের কাছ থেকে জানা গেছে।

শুধু এ ঘটনায়ই নয়, দেশে ট্রেনের নানা রুটে প্রায়ই ঘটে এরকম পাথর নিক্ষেপের ঘটনা। এতে যাত্রীদের আহত হওয়ার পাশাপাশি কখনো কখনো ঘটে মৃত্যুও।
সম্প্রতি ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের ঘটনা বেড়েছে উদ্বেগজনক হারে। এমন পরিস্থিতিতে বেশকিছু পরিকল্পনা নিয়েছে মন্ত্রণালয়। এরই মধ্যে পূর্বাঞ্চলের ৪টি ও পশ্চিমাঞ্চলের ১০টি জেলা ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত হয়েছে। তাই ওই সব এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।

চলতি বছরে ১১০টি পাথর নিক্ষেপের ঘটনায় ২৯ জন আহত হলেও কাউকে বিচারের মুখোমুখি করতে পারেননি রেলওয়ে পুলিশ বা রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী। আরএনবি।
পাঠকের মন্তব্য
Advertisement
জাতীয়

আরো সংবাদ